মরক্কোয় বাংলাদেশিদের শিক্ষাবৃত্তির আবেদন শুরু

মরক্কো সরকারের শিক্ষাবৃত্তির আওতায় আন্ডারগ্র্যাজুয়েট, স্নাতকোত্তর ও পিএইচডি পর্যায়ে ২০২২-২৩ শিক্ষাবর্ষে বাংলাদেশি শিক্ষার্থীদের কাছ থেকে আবেদন গ্রহণ শুরু হয়েছে। গত ১৩ জুলাই থেকে শুরু হওয়া এ আবেদন প্রক্রিয়া চলবে আগামী ৩০ আগস্ট পর্যন্ত। সম্প্রতি প্রকাশিত শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের এক বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়েছে। বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়েছে, আগ্রহী প্রার্থীদের মরক্কো সরকারের সংশ্লিষ্ট ওয়েবসাইটে অনলাইনে আবেদন করতে হবে।

এ ছাড়া বাংলাদেশ সরকারের শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের কাছে অনলাইনে আবেদন করার পাশাপাশি আবেদন ও যাবতীয় শিক্ষাগত যোগ্যতার সনদ, মার্কশিট, পুলিশ ক্লিয়ারেন্স সাটিফিকেটসহ অন্যান্য কাগজপত্রের হার্ডকপি শিক্ষা মন্ত্রণালয়,

বাংলাদেশ সচিবালয়ে জমা দিতে হবে। যেসব বিষয়ে বৃত্তি দেওয়া হবে- মেডিকেল স্টাডিজ, প্যারামেডিকেল সায়েন্সেস, কমার্শিয়াল অ্যান্ড ম্যানেজমেন্ট সায়েন্সেস, ইঞ্জিনিয়ারিং অ্যান্ড টেকনোলজিক্যাল সায়েন্স, অ্যাগ্রোনোমিক অ্যান্ড ভেটেরিনারি সায়েন্স ও আর্কিটেকচার।

আবেদন ফরম যথাযথভাবে পূরণ করে প্রয়োজনীয় কাগজপত্রসহ (ইংরেজিতে) দুই সেট আবেদন দাখিল করতে হবে। যেসব কাগজপত্র লাগবে—
১. সব পরীক্ষার সত্যায়িত সার্টিফিকেট ও মার্কশিট
২. জন্মসনদ
৩. পাসপোর্টের ফটোকপি

৪. মেডিকেল সার্টিফিকেট
৫. জাতীয় পরিচয়পত্রের ফটোকপি
৬. স্টাডি প্রোগ্রাম ও রিসার্চ পেপার অথবা থিসিস (গ্র্যাজুয়েট প্রার্থীদের জন্য)।

৭. খসড়া থিসিস (ডক্টরেট প্রার্থীদের জন্য)।
৮. সম্প্রতি তোলা দুই কপি রঙিন পাসপোর্ট সাইজের ছবি।

আবেদন করার প্রক্রিয়া- আগ্রহী প্রার্থীদের মরক্কো সরকারের এই ওয়েবসাইট বা www.enssup.gov.ma এবং www.dfc.gov.ma ওয়েবসাইট থেকে আবেদন ফরম ডাউনলোড করতে হবে। এসব ওয়েবসাইট থেকে প্রয়োজনীয় তথ্য সংগ্রহ করতে পারবেন। পরে বাংলাদেশ সরকারের শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের এই লিংকে আবেদন করতে হবে।

অনলাইনে ফরম পূরণ–সম্পর্কিত কোনো সমস্যার জন্য [email protected] ঠিকানায় মেইল করা যাবে। এরপর আবেদনপত্রের হার্ডকপি সচিবালয়ে অফিস চলাকালে ২ নম্বর গেট–সংলগ্ন অভ্যর্থনা কক্ষে জমা দিতে হবে। খামের ওপর প্রেরক, প্রাপক, আবশ্যিকভাবে আইডি/ ট্র্যাকিং নম্বর এবং প্রোগ্রামের নাম উল্লেখ করতে হবে।

কোনো প্রার্থী একাধিক প্রোগ্রামে আবেদন করলে তাঁর আবেদন বাতিল বলে গণ্য হবে। অর্থাৎ আন্ডারগ্র্যাজুয়েট, মাস্টার্স/ ডক্টরাল যেকোনো একটি প্রোগ্রামের জন্য আবেদন করা যাবে। এ ছাড়া পূরণ করা তথ্য ছক ও ক্যাটাগরি অনুযায়ী প্রযোজ্য সার্টিফিকেট/ মার্কশিট ও অন্যান্য যাবতীয় ডকুমেন্টের হার্ডকপি এবং

পুলিশ ক্লিয়ারেন্সের হার্ডকপি মন্ত্রণালয়ে জমা না দেওয়া হলে কোনো আবেদন বিবেচনা করা হবে না। বৃত্তিসংক্রান্ত বিস্তারিত তথ্য এই লিংকে জানা যাবে।

শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের অনলাইন লিংকে আবেদনের শেষ সময় ৩০ আগস্ট বিকেল ৪টা পর্যন্ত। আবেদনের হার্ডকপি মন্ত্রণালয়ে জমা দেওয়ার শেষ সময় ৩১ আগস্ট বিকেল ৪টা পর্যন্ত।

Be the first to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.


*