বৃহস্পতিবার থেকে কমতে পারে তাপমাত্রা

দেশের তাপমাত্রা মঙ্গলবারও (৯ মে) কিছুটা বেড়েছে। তবে আপাতত তাপমাত্রা অপরিবর্তিত থাকার পূর্বাভাস দিয়েছে আবহাওয়া অধিদপ্তর। একইসঙ্গে বৃহস্পতিবার (১১ মে) থেকে তাপমাত্রা কমতে পারে বলেও জানিয়েছে সংস্থাটি। ঝড়-বৃষ্টি না থাকায় কয়েকদিন ধরে ক্রমেই তাপমাত্রা বাড়ছে। চার জেলার ওপর দিয়ে বইছে তীব্র তাপপ্রবাহ।

গরমে সারাদেশের মানুষই কষ্ট পাচ্ছে। যদিও এরইমধ্যে বঙ্গোপসাগরে একটি লঘুচাপ সৃষ্টি হয়েছে। যেটি গত মধ্যরাতে সুস্পষ্ট লঘুচাপে পরিণত হয়েছে। এটি ক্রমে শক্তি বাড়িয়ে ঘূর্ণিঝড়ে পরিণত হতে পারে বলে জানিয়েছেন আবহাওয়াবিদরা। মঙ্গলবার দেশের সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ৪১ দশমিক ২ ডিগ্রি সেলসিয়াস ছিল চুয়াডাঙ্গায়।

একদিন আগে যা ছিল ৪১ ডিগ্রি সেলসিয়াস। ঢাকায় সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ৩৯ দশমিক ২ ডিগ্রি সেলসিয়াস থেকে বেড়ে হয়েছে ৩৯ দশমিক ৮ ডিগ্রি সেলসিয়াস। আবহাওয়াবিদ মো. বজলুর রশিদ জানান, দক্ষিণ-পূর্ব বঙ্গোপসাগর ও তৎসংলগ্ন দক্ষিণ আন্দামান সাগর এলাকায় অবস্থানরত লঘুচাপটি ঘণীভূত হয়ে একই এলাকায় সুস্পষ্ট লঘুচাপে পরিণত হয়েছে।

এটি আরও ঘণীভূত হতে পারে। লঘুচাপের বর্ধিতাংশ পশ্চিমবঙ্গ এবং তৎসংলগ্ন এলাকায় অবস্থান করছে। মঙ্গলবার সন্ধ্যা ৬টা থেকে পরবর্তী ২৪ ঘণ্টার আবহাওয়ার পূর্বাভাস তুলে ধরে তিনি বলেন, অস্থায়ীভাবে আংশিক মেঘলা আকাশসহ সারাদেশের আবহাওয়া শুষ্ক থাকতে পারে। তবে ময়মনসিংহ ও সিলেট বিভাগের দু-এক জায়গায় বৃষ্টি বা বজ্রসহ বৃষ্টি হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে।

এ সময়ে সারাদেশে দিন ও রাতের তাপমাত্রা প্রায় অপরিবর্তিত থাকতে পারে। রাজশাহী, চুয়াডাঙ্গা, কুষ্টিয়া ও পটুয়াখালী জেলার ওপর তীব্র তাপপ্রবাহ বয়ে যাচ্ছে।

এছাড়া দেশের অন্যত্র মৃদু থেকে মাঝারি ধরনের তাপপ্রবাহ বয়ে যাচ্ছে এবং তা অব্যাহত থাকতে পারে বলেও জানান তিনি। একদিন পর তাপমাত্রা কমতে পারে জানিয়ে বজলুর রশিদ বলেন, আগামী পাঁচদিনে বৃষ্টি বা বজ্রসহ বৃষ্টিপাত হতে পারে।

Be the first to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.


*